জামায়াত সেক্রেটারিসহ ৯ জন ৪ দিনের রিমান্ডেঃ ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি মাওঃমাছুম

অভিমত রিপোর্ট অভিমত রিপোর্ট

প্রকাশিত: ৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৯:২৬ অপরাহ্ণ

রাজধানীর ভাটারা থানায় করা সন্ত্রাসবিরোধী আইনের মামলায় জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ারসহ দলটির নয়জন নেতা-কর্মীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চার দিন করে রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত। ৭ সেপ্টেম্বর (মঙ্গলবার) মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও ভাটারা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আমিনুল ইসলাম এর আবেদনের প্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম মাহমুদা আক্তার উভয়পক্ষের শুনানি শেষে এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ড মঞ্জুর করা অপর আসামিরা হলেন- জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা রফিকুল ইসলাম খান, সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল ও সাবেক এমপি এ. এইচ. এম. হামিদুর রহমান আযাদ, নির্বাহী পরিষদের সদস্য অধ্যক্ষ মোঃ ইজ্জত উল্লাহ, উপাধ্যক্ষ মোঃ আব্দুর রব, মোবারক হোসেন, ইসলামী ছাত্রশিবিরের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াসিন আরাফাত এবং জামায়াতের কর্মী মনিরুল ইসলাম ও আবুল কালাম।

এর আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও ভাটারা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আমিনুল ইসলাম আসামিদের ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে ১০ দিন করে রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন। আসামিপক্ষে অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ শিশির মনির, অ্যাডভোকেট আব্দুর রাজ্জাক, গোলাম রহমান ভুঁইয়াসহ বেশ কয়েকজন রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে চার দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

এর আগে ৬ সেপ্টেম্বর সোমবার বিকেলে ঢাকার বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার একটি বাসা থেকে জামায়াতের নয়জন নেতাকর্মীকে আটক করে পুলিশ।

মিয়া গোলাম পরওয়ার ২০০১ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে খুলনা-৫ (ফুলতলা-ডুমুরিয়া) আসন থেকে জামায়াতের মনোনয়নে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। হামিদুর রহমান আযাদ ২০০৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কক্সবাজার-২ (মহেশখালী-কুতুবদিয়া) আসনে জামায়াতের মনোনয়নে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সহকারি সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা এটিএম মা’ছুমকে দলের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল মনোনীত করা হয়েছে। জামায়াতের আমির ডা: শফিকুর রহমান মঙ্গলবার সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানান।